বিজয় দিবসের সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা | বিজয় দিবসের বক্তব্য pdf | ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের ভাষণ – বিজয় দিবসের ভাষণ

বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে বক্তব্য, বিজয় দিবসের বক্তব্য pdf, বিজয় দিবসের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য, বিজয় দিবসের উপস্থাপনা, ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ এর ইতিহাস, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস রচনা, বিজয় দিবস কি ও কেন, বিজয় দিবসের বক্তব্য pdf, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস বক্তব্য, বিজয় দিবসের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস বক্তব্য ২০২২, বিজয় দিবসের উপস্থাপনা, বিজয় দিবস উপলক্ষে কিছু কথা, বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রতিবেদন, বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে রচনা,
আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা, আশা করি ভালো আছেন? আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি ।
আজকের পোস্টে আমি আপনাদের সাথে সেয়ার করবো ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের ভাষন সম্পর্কে
। আপনি যদি বিজয় দিবসে বক্তৃতা দিতে চান তাহলে নিচে আমি স্কিপ্ট লিখে দিলাম আশা
করি আপনার উপকার হবে ।
Related Post:

 বিজয় দিবসের সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা

অতঃপর মা আমি ফিরে এলাম তোমার বুকে কিংবা এ মটির বুকে,
বুঝে নাও রক্তের দামে কেনা তোমার এ রক্তাক্ত বিজয় ।
অদ্যকার বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানের সম্মানিত সভাপতি, শিক্ষকমন্ডলী,
বিশেষ অতিথি, সমবেত সুধিমন্ডলী ও আমার সহপাঠী বন্ধুগন, সবাই বিজয়ের এই মহান দিনে
আমার সালাম ও শুভেচ্ছে গ্রহণ করুন ।
আজ ১৬ই ডিসেম্বর, বাঙালির জীবনে এক পরমানন্দের দিন, শৃঙ্খল ভাঙার দিন, স্বাধীন
আকাশে মুক্ত পাখির মতো উড়ে বেড়াবার দিন ।
১৯৭১ সালের এই দিনে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ভূমিষ্ট
হয়। বাংলাদেশের এই বিজয় ছিনিয়ে আনতে দীর্ঘ নয় মাস পাক হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে
রক্তাক্ত যুদ্ধ করেছে এ দেশের দামাল ছেলেরা ।
এ যুদ্ধ ছিলো অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায়ের জন্য যুদ্ধ, পরাধীনতার বিরুদ্ধে
স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ, মায়ের ভাষায় কথা বলার অধিকার আদায়ের জন্য যুদ্ধ ।
মাতৃভুমির কপালে বিজয়ের লাল টিপ পড়াতে লাখো শহীদ তাঁদের বুকের তাজা রক্ত ঢেলে
দিয়েছে, হাজারো মা বোন সম্ভ্রম হারিয়েছেন ।
See also  এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানের বক্তব্য
আমি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি লাখ লাখ বীর শহীদদের যারা তাঁদের বুকের তাজা রক্ত ঢেলে
দিয়ে আমাদের জন্য এনে দিয়েছে স্বাধীনতা ।
অনেক ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে যে স্বাধীনতা, আমরা পেয়েছি যে বিজয়… সেই সাথে
বিজয়ের স্বাদ কী আমরা সাধারণ মানুষের সত্যিকারে ভোগ করতে পেরেছি? নিশ্চয়-ই না ।

১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস বক্তব্য ২০২৩

মুক্তি যুদ্ধের চেতনার বাস্তবায়নে ঘাটতি রয়েছে বলেই বিজয়ের প্রায় অর্ধশত বছর
পেরিয়ে গেলেও আমরা আমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারিনি ।
মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মর্মকথা হলো গণতন্ত্র, যে গণতন্ত্রে আছে ন্যায়পরায়নতা,
নাগরিকদের রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক স্বাধীনতা, অধিকারের সমতা, পরমতসহিষ্ণুতা ।
আজ আমাদের রাজনীতি এসব নীতি থেকে দূরে । আমাদের গণতন্ত্র অনিশ্চিত ও ভঙ্গুর ।
আমাদের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো দুর্বল, সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা সীমাবদ্ধ ।
এমনকি, একটি সরকারের মেয়াদ শেষে জনগণের মুক্ত-স্বাধীন ইচ্ছার ভিত্তিতে সৎ ও
শান্তিপূর্ণ উপায়ে রাষ্ট্রক্ষমতা হস্তান্তরের স্বাভাবিক ও স্থায়ী গণতান্ত্রিক
ব্যবস্থাও এখনো গড়ে তোলা যায়নি ।
আমাদের বিজয় সেদিনই সফল হবে, যেদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে কাজে লাগিয়ে বর্তমান
প্রজন্মের তরুণরা বাংলার ১৬ কোটি মানুষের মুখে হাসি ফুটাবে ।
সেদিন থাকবে না কোনো দুর্নীতি, থাকবে না কোনো অনাহারী, থাকবে না অশিক্ষিত মানুষ ।
পৃথিবীর মানচিত্রে লাল সবুজের বাংলাদেশ হবে নবজাগরণের উদ্দীপ্ত বাংলাদেশ ।
পরিশেষে আমাদের রাজনীতিবিদসহ সকলকে দেশপ্রেমের উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে আমার বক্তব্য
এখানে শেষ করছি ।

বিজয় দিবসের বক্তব্য pdf

আপনি যদি বিজয় দিবসের বক্তব্য pdf নিতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করে পিডিএফ সংগ্রহ
করুন ।
Related Post:

See also  এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা (বিদায় অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *